ইসলামিক নামের গুরুত্ব

ইসলামিক নামের গুরুত্ব

ভালো ও মন্দ নামের পরিণাম

মুয়াত্তা নামক হতিহাসে খ্যাত গ্রন্থে একটি আশ্চর্যজনক ঘটনা এভাবে উল্লেখ আছে মুসলিম জাহানের দ্বিতীয় খলিফা হযরত ওমর ফারুক রা. জনৈক ব্যক্তিকে প্রশ্ন করলেন , তোমার নামি কি? সে উত্তর দিল “জামরত” যার অর্থ অগ্নিস্ফূলিঙ্গ।

তিনি আবার প্রশ্ন করলেন, তোমার বাড়ি কোথায়? সে উত্তর দিল বাহরুন্নার যার অর্থ আগুনের গর্ভে। তিনি আবার ও প্রশ্ন করলেন কোন অংশে? সে উত্তর দিল বেজাতিল্লাযা যার অর্থ জ্বলন্ত অংশে।

একথা শুনে হযরত ওমর বললেন তুমি স্বীয় গোত্রের নিকট প্রত্যাবর্তন করে দেখ যে, তারা সবাই জ্বলে ছাই হয়ে গিয়েছে। লোকটি পরে বর্ণনা করে যে, সত্যিই আমি স্বীয়  কওমের নিকট গিয়ে দেখি তারা সবাই ভষ্মীভূত হয়ে গিয়েছে।

নাম রাখার আগে লক্ষ্য রাখবেন

অনুরূপ আরও একটি ঘটনার উল্লেখ আছে, একদিন প্রিয় নবী স. একটি দুগ্ধবতী ছাগ দোহন করার জন্য বললেন , কে এটাকে দোহন করবে? এক ব্যক্তি দণ্ডায়মান হয়ে বলল আমি । হুজুর সা. তৎক্ষণাৎ তাকে জিজ্ঞেস করলেন তোমার নাম কি?

সে উত্তর করল মুবারাহ (তিক্ত)। তিনি তাকে বললেন বসো। পুনরায় এক ব্যক্তিকে জিজ্ঞেস করলেন, লোকটি উত্তর দিল হারব তাকেও বললেন বসো। পুনরায় জিজ্ঞেস করলেন কে এটিকে দোহন করবে?

এরপর এক ব্যক্তি দাড়াল তাকে জিজ্ঞেস করলেন নাম কি? সে উত্তর দিল ইয়ায়ীয। রাসূল সা. তাকে দুগ্ধ দোহনের অনুমতি দিলেন।

আরো জানুন

আকীকা করার নিয়ম

মেয়েদের ইসলামিক নামের তালিকা অর্থসহ

ছেলেদের ইসলামিক নামের তালিকা অর্থসহ

Share this

Leave a Comment

Your email address will not be published.

close button